ফ্যাসীবাদের প্রেরণা -গুরু’র নতুন বাণী

Nuraldeen

আজকের বাংলাদেশে যে আওয়ামী ফ্যাসীবাদ পূর্নশক্তিতে জাকিয়ে বসেছে তার পিছনে মূল প্রেরণা হিসেবে রয়েছে কোনো বিশাল নেতা অথবা নেত্রী নয়, কোনো খ্যাতনামা রাজনীতির তাত্বিক নয়, রয়েছে একজন স্ব-আখ্যায়িত শিশুসাহিত্যিক। ফ্যাসীবাদের মূল নিয়ামক কিন্তু একজন ভয়ংকর কতৃত্ববাদী একনায়ক, একটি সর্বগ্রাসী রাজনৈতিক দল কিংবা গনদলনে সিদ্ধহস্ত পুলিশবাহিনী নয়। যেকোনো ফ্যাসীবাদের মূলে থাকে একটি কঠোর ও বিশুদ্ধ আইডিওলজী। পৃথিবীতে অনেক দেশেই নানারকম টিনপট ডিক্টেটরশীপ, একপার্টির রাজত্ব দেখা গেছে গত একশ বছরে কিন্তু প্রকৃত ফ্যাসিস্ট রাষ্ট্রের সাথে এসব হীরক রাজার দেশগুলির মূল পার্থক্য হলো একটি ফ্যাসিস্ট আইডিওলজী। জনগনের গনতান্ত্রিক অধিকারকে সম্পূর্নভাবে নসাৎ করে এবং সেই সাথে জনগনের একটি বড়ো অংশের নি:শর্ত আনুগত্য বজায় রাখতে কেবল বিশাল পুলিশবাহিনী কিংবা বিদেশী সাহায্য যথেষ্ট নয়, এর জন্যে প্রয়োজন হয় একটি কঠোর ও জনপ্রিয় আইডিওলজীর। বাংলাদেশে ২০১৩-১৪ সালে যে নতুন ফ্যাসীবাদের সূচনা হয়েছে তার মূলের রয়েছে একটি আইডিওলজী, সেটি হলো মুক্তিযুদ্ধের চেতনা এবং বর্তমানে এই আইডিওলজীর মূল প্রেরণা-গুরু হলো মুহম্মদ জাফর ইকবাল।

575468_10151728328535653_444069226_n

মুক্তিযুদ্ধের চেতনা কেমন করে বাংলাদেশে ফ্যাসীবাদের মূল হাতিয়ার হয়ে…

View original post 3,132 more words

Advertisements

কিসের আহবান?

কিসের আহবান?

শোনা যায়, এখানে নাকি একটা সময় রাতের আকাশ ছেয়ে যেত জোছনায়। পাখিদের উচ্ছ্বাস শুনে তবেই সেই মোহ কেটে গিয়ে ভোর হত। মধ্যবেলার রোদ কর্কশ ছিল না আদৌ, ঘাসলতার মেঝেতে খেলে বেড়াত স্নিগ্ধ আলোছায়া। আর বনের ঠিক মাঝখানটা দিয়ে একখানা পায়ে-চলা পথ ছিল। শিশিরে ভেজা ঘাস নুয়ে থাকত তার দু’ধারে। পথ চলতে পথিকের মনে হত, এখানকার রাতটা এর দিনের মতই উজ্জ্বল।

আজ অবশ্য পথটাকে চেনার উপায় নেই- ঝোপঝাড় মনসা-কণ্টকের বেয়াড়া অত্যাচারে সে মুছে এসেছে প্রায়। একধারে যুক্তিহীন ধর্মান্ধতার কাঁটাগাছ, অন্যধারে গোঁড়া সংশয়বাদের বিছুটি। আকাশটাই একসময় পথের দিশা খুঁজে দিত- এখন তাকে আড়াল করে রেখেছে রাজনীতি আর ধর্মতত্ত্বের প্রশাখাসর্বস্ব একরাশ গাছপালা। পথিকের কাছে তার ডালপাতার ঠাহর নেই একদম। বুদ্ধি-বিবেচনার অদেখা সূর্যটা থেকে এখন আর আলো আসে না, আসে তাপ। মাঝে মাঝে নেমে আসে প্রতিক্রিয়াশীলতার গুমোট রাত। বাংলাদেশের এখনকার ইসলামকে দেখে পথিকের মনে তাই সংশয় দেখা দিতেই পারে।

আহবান শিশিরে ভেজা এতটুকু একটা ঘাসফুলের নাম- এরকম হতচ্ছাড়া পারিপার্শ্বিকতার মাঝেও সে পথচলার প্রেরণা দেয়। পথ যদি মুছে যায়ও, পথিকের অন্তরাত্মার আহবান নেভে না আদৌ। কারিগর স্বয়ং যেখানে হৃদয়ে তাঁর চেতনা বসিয়ে দিয়েছেন, সেই চেতনার ডাক অগ্রাহ্য করার আমি কে? আমাদের বিশ্বাস, সত্যিকার অর্থে হৃদয় মেলে দিলে স্রষ্টার সেই শাশ্বত ডাক আজও শোনা যায়। আপনি কি ঈশ্বর, ইসলাম, সমাজ, উদ্দেশ্য, জীবন ইত্যাদি সম্পর্কে জানতে বা কথা বলতে চান? কোনরকম গোঁড়ামি, দলীয়করণ আর প্রতিক্রিয়াশীলতা থেকে দূরে থেকে স্রেফ ইসলামকে বুঝতে বা অনুভব করতে চান? তাহলে আপনি যে ধর্মের বা মতেরই হোন না কেন- আমাদের আহবান আপনার অপছন্দ হওয়ার কথা নয়।

আহবানটা তবে কীসের? আহবান আশার- নতুন করে চলার পথ গড়ে নেওয়ার!

W: http://www.ahobaan.com
F: http://on.fb.me/16ujfH7